মালয়েশিয়া কলিং ভিসা বন্ধ না খোলা 2024

মালয়েশিয়াতে যাওয়ার জন্য অনেক ধরনের ভিসা আছে। এর মধ্যে রয়েছে কাজের ভিসা। কাজের ভিসার মাধ্যমে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন কোম্পানিতে কাজ করা যাবে। মালয়েশিয়ার সরকারি ভিসার মধ্যে রয়েছে কলিং ভিসা। মালয়েশিয়াতে প্রজেক্টের জন্য শ্রমিকের প্রয়োজন হলে বিভিন্ন দেশে নিয়োগ দেওয়া হয়। কাজের দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা থাকলে এই শুকল ভিসায় আবেদন করা যাবে। এবঙের করার পূর্বে মালয়েশিয়া কলিং ভিসা বন্ধ না খোলা এই বিষয়ে জানতে হবে।

কেননা এক সময়ে মালয়েশিয়ার ভ্রমণ বা কাজের ভিসা বন্ধ ছিলো। ২০২৩ সালের আগস্টের দিকে মালয়েশিয়ার সকল ভিসা চালু করা হয়। কিন্তু কলিং ভিসা চালু করা হয়নি। এখনো মালয়েশিয়ার কলিং ভিসা বন্ধ আছে। ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসে ভিসা নিয়ে সমস্যা দেখা যায়। ভিসা সংক্রান্ত সমস্যার কারণে মালয়েশিয়া সরকার কলিং ভিসা প্রক্রিয়া স্থগিত করে। তারা নতুন নীতিমালা ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত এই ভিসা বন্ধ থাকবে।

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা বন্ধ না খোলা

মালয়েশিয়ার কলিং ভিসা ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসে বন্ধ করা হয়েছিল। এর পিছিনে বেশ কয়েকটি কারণ আছে। ভিসা আভিযগে দেখা গেছে,  বাংলাদেশের কিছু এজেন্ট অবৈধভাবে মালয়েশিয়ান কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের ঘুষ দিয়ে কলিং ভিসার অনুমোদন পেয়েছিল। এই ঘনটি মালয়েশিয়া সরকার জানতে পারে। এরপর কলিং ভিসা বাংলাদেশের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। এখন পর্যন্ত কলিং ভিসা খোলা হয়নি। তাই কোনো বাংলাদেশি ব্যাক্তি এই ভিসায় আবেদন করতে পারবে না।

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা বন্ধ না খোলা 2024

২০২২ সালের ডিসেম্বরে কলিং ভিসা বন্ধ হয়ে যায়। এর পিছনে বাংলাদেশি ভিসা এজেন্সি দায়ী। তরা অবৈধ ভাবে বাংলাদেশ থেকে কলিং ভিসায় শ্রমিক পাঠায়। এই ঘটনা মালয়েশিয়া সরকার জানতে পারে। এই সমস্যার কারণে মালয়েশিয়ার সরকার ভিসা নিয়ে ন্যূন নীতিমালা প্রকাশের জন্য ঘোষণা দেয়। সেই সাথে কলিং ভিসার কার্যকলাপ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়। এখন বাংলাদেশ থেকে কলিং ভিসায় শ্রমিক নেওয়া যাচ্ছে না। ১ বছরের বেশি হয়ে গেলেও, ভিসা নিয়ে নতুন কোনো নীতিমালা চালু করা হয় নি। তাই এখনো কলিং ভিসা বন্ধ হয়ে আছে।

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা বন্ধ হওয়ার কারণ

এই ভিসা বন্ধ হওয়ার পিছিনে বাংলাদেশি এজেন্ট দায়ী। তাদের বেশ কয়েকটি ভুলের জন্য মালয়েশিয়া সরকার ভিসা বন্ধ করে দেয়। তাদের প্রধান কারণে অসৎ ভাবে বিপুল পরিমাণে বাংলাদেশি শ্রমিকদের কলিং ভিসা দেওয়া। ভিসা স্ক্যান্ডাল এর জন্য ২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসে ভিসা বন্ধের ঘোষণা আসে। মালয়েশিয়ায় অবৈধ ভাবে শ্রমিকের সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকে। এর কারণে তাদের দেশের সরকার উদ্বিগ্ন হয়ে ভিসা বন্ধ করে।  বাংলাদেশেই ভিসা এজেন্সত তাদের দেশের কর্মকর্তাদের ঘুষ দিয়ে ভিসার জন্য অনোমোদন নিয়েছিলও। সব মিলিয়ে এই সমস্যা সমাধানের জন্য নতুন নীতিমালা প্রকাশ করার ঘোষণা দেওয়া হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত ভিসার জন্য নীতিমালা তৈরি করেনি। তাই এই ভিসা চালু করা হচ্ছে না। মালয়েশিয়া কলিং ভিসা বন্ধ হওয়ার কারণ ঘুষের মাধ্যমে অতিরিক্ত শ্রমিক মালয়েশিয়াতে প্রবেশ করানো।

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা কবে চালু হবে

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা খোলার জন্য নতুন নীতিমালা প্রকাশ করা হবে। মালয়েশিয়া সরকার কলিং ভিসার জন্য এখনো কোনো নীতিমালা তৈরি কররেনি। কিন্তু তারা অন্যান্য ভিসা চালু রেখেছে। ভিসা চালু করা হলে নতুন নীতিমালা প্রকা করবে। সাথে মালয়েশিয়া কলিং ভিসা কবে চালু হবে তা ঘোষণা দিবে। কবে ঘোষণা দিবে জানতে নিচের ঠিকানায় ভিজিট করুন।

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা কবে চালু হবে ২০২৪

শেষ কথা

কলিং ভিসা একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে পরিচালিত। যার কারণে বেসরকারি ভাবে ভিসা পাওয়া যায় না। যদি মালয়েশিয়া সরকার ভিসা খোলার জন্য ঘোষণা না দেয়, তাহলে বেসরকারি ভাবেও এই ভিসা পাওয়া যাবে না। এই ভিসা আবার কবে চালু করা হবে তা ঘোষণা করা হয়নি। কবে ভিসা চালু হবে এই বিষয়ে জানতে পারলে এখানে আপডেট জানানো হবে। আশা করছি মালয়েশিয়া কলিং ভিসা বন্ধ না খোলা এই বিষয়ে জানতে পেরেছেন।

আরও দেখুনঃ

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে আজকের খবর

মালয়েশিয়া কোন ভিসা ভালো এবং বেতন বেশি

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top